শরিফির হ্যাটট্রিকে পুলিশের টানা জয়

শরিফির হ্যাটট্রিকে পুলিশের টানা জয়

প্রিমিয়ার ফুটবল লিগে টানা তিন ম্যাচ জিতল বাংলাদেশ পুলিশ। সোমবার রাজশাহীর মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে আফগানিস্তানের ফারোয়ার্ড আমিরুদ্দিন শরিফির হ্যাটট্রিকের সুবাদে তারা ৪-২ গোলে হারায় স্বাধীনতা ক্রীড়া সংঘকে। পুলিশের বাকি গোলটি করেন মরোক্কোর মিডফিল্ডার আদিল কুছকুছ। 

চলমান প্রিমিয়ার লিগের চতুর্থ হ্যাটট্রিকম্যান আমিরুদ্দিন শরিফি। আগের তিন হ্যাটট্রিকম্যানও বিদেশি। রহমতগঞ্জের বিপক্ষে বসুন্ধরার ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড ডরিয়েলটন গোমেজ, সাইফ স্পোর্টিংয়ের বিপক্ষে চট্টগ্রাম আবাহনীর পিটার থ্যাঙ্কগদ এবং স্বাধীনতা ক্রীড়া সংঘের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করেন সাইফ স্পোর্টিংয়ের এমেকা ওগবোগে।

স্বাধীনতার হয়ে দুই গোল করেন পোল্যান্ডের মিডফিল্ডার রাফাল জাবোরস্কি ও বসনিয়া ও হার্জেগোভিনার ফরোয়ার্ড নেদো তর্কোভিচ। এই জয়ে ৭ ম্যাচে ১১ পয়েন্ট নিয়ে দুই ধাপ এগিয়ে টেবিলের পঞ্চম স্থানে উঠে এলো পুলিশ। সমান ম্যাচে স্বাধীনতার ৪ পয়েন্ট। তারা রয়েছে ১১তম স্থানে।

অন্যদিকে একই দিনে গোপালগঞ্জের শেখ ফজলুল হক মনি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে মুক্তিযোদ্ধার আত্মঘাতী গোলে ১-০ ব্যবধানে জয় পায় রহমতগঞ্জ। ম্যাচের ৫৭ মিনিটে বল ক্লিয়ার করতে গিয়ে নিজেদের জালেই জড়িয়ে দেন মুক্তিযোদ্ধার ইউনুসা কামারা (১-০)। ওই গোল আর শোধ করা হয়নি স্বাগতিকদের। ফলে উপহারের গোলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে পুরানো ঢাকার ঐতিহ্যবাহী দল রহমতগঞ্জ।

এই দুই ম্যাচ দিয়েই শেষ হয়েছে প্রিমিয়ার লিগের সপ্তম রাউন্ড। এই জয়ে সাত ম্যাচে ৭ পয়েন্ট নিয়ে অষ্টম স্থানে উঠে এসেছে রহমতগঞ্জ। অন্যদিকে সমান ম্যাচ খেলে মাত্র তিন পয়েন্ট নিয়ে তলানীতে মুক্তিযোদ্ধা। 

আগামী তিন দিন বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের কোনো ম্যাচ নেই। শুক্রবার থেকে শুরু হবে লিগের অষ্টম রাউন্ড। 

মেরাজুল কনক

আমি মেরাজুল ইসলাম, একজন বাংলাদেশী ব্লগার। ব্লগিং এর পাশাপাশি আমি ওয়েবসাইট ডিজাইন, কন্টেন্ট রাইটিং, কাস্টমাইজ সহ ওয়েব রিলেটেড অনেক কাজ করি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন (0)
নবীনতর পূর্বতন