দশদিন আগেই বাংলাদেশে আসছে আফগানিস্তান দল

৩ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের সঙ্গে ২ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে চলতি মাসে বাংলাদেশে আসার কথা আফগানিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দলের। শোনা যাচ্ছিল এই সফরের জন্য আগামী ১৯ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় পা রাখবে সফরকারীরা। তবে সম্প্রতি একাধিক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয়, ১৯ তারিখ নয়, আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি আসবেন রাশিদ খানরা। আজ (বুধবার) আনুষ্ঠানিকভাবে জানা গেছে, দশদিন আগেই বাংলাদেশে আসতে চায় আফগানিস্তান।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের কাছে আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড আবদার করেছে, কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নিতে আগেভাগে এ দেশে আসতে চায় তারা। অনুমতি দিয়েছে বিসিবি। এজন্য আগামী ১২ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশে আসবে আফগানরা। ঢাকায় পা রেখেই তারা চলে যাবে সিলেট। সেখানেই জৈব সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে হবে ক্যাম্প।

মিরপুরে সংবাদমাধ্যমকে বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী বলছিলেন, ‘আফগানিস্তান আমাদের অনুরোধ করেছে তারা একটা কন্ডিশনিং ক্যাম্প করতে চাচ্ছে। এই কন্ডিশনিং ক্যাম্পটা আমরা সিলেটে আয়োজনের পরিকল্পনা নিয়েছে। এই মুহূর্তে যে শিডিউল করা আছে তাতে আমরা আশা করছি আফগানিস্তান আগামী ১২ ফেব্রুয়ারির দিকে তারা আসবে।’

এদিকে ভেন্যু তালিকায়ও এসেছে পরিবর্তন। আফগানিস্তান দল সিলেটে কন্ডিশনিং ক্যাম্প করলেও সেখানে হবে না সিরিজের কোনো ম্যাচ। তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজটি হবে চট্টগ্রাম। টি-টোয়েন্টি সিরিজ হবে মিরপুরের শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। এখনো সিরিজের সূচি নির্ধারণ না হলেও সব ম্যাচ ফ্লাডলাইটের আলোর নিচে আয়োজনের ভাবনা বিসিবির।

নিজামউদ্দিন বলেন, ‘আমরা মূলত চেষ্টা করব সূচিটা আজকেই চূড়ান্ত করে আপনাদেরকে মিডিয়া রিলিজ আকারে দিয়ে দেওয়ার জন্য। যদি সম্ভব না হলে সর্বোচ্চ কালকের মধ্যে দিয়ে দেবো। আমাদের এখন পর্যন্ত যেটা পরিকল্পনা রয়েছে, আমরা এই ওয়ানডে আর টি-টোয়েন্টি যে সিরিজটা হবে আফগানিস্তান জাতীয় দলের সঙ্গে, সেটা আমরা ঢাকাতে এবং চট্টগ্রামে দুটো ভেন্যু আমরা ব্যবহার করব।’

সঙ্গে যোগ করেন সুজন, ‘আমরা যেটা পরিকল্পনা করেছি, আমরা ওয়ানডেটা চট্টগ্রামে এবং টি-টোয়েন্টিটা ঢাকাতে আয়োজনের পরিকল্পনা নিয়েছি।’

মেরাজুল কনক

আমি মেরাজুল ইসলাম, একজন বাংলাদেশী ব্লগার। ব্লগিং এর পাশাপাশি আমি ওয়েবসাইট ডিজাইন, কন্টেন্ট রাইটিং, কাস্টমাইজ সহ ওয়েব রিলেটেড অনেক কাজ করি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন (0)
নবীনতর পূর্বতন