মেসির গোলের রেকর্ড হাতিয়ে নিলেন তারই বন্ধু

বর্ণাঢ্য এক ক্যারিয়ারে কত শত রেকর্ড গড়েছেন লিওনেল মেসি। তবে রেকর্ড যে গড়া হয় ভাঙারই জন্য! মেসির রেকর্ডগুলোতেও হানা পড়তে শুরু করেছে শেষ কিছু দিনে। এবার হানা পড়ল তার বন্ধু লুই সুয়ারেজের। উরুগুইয়ান এই ফরোয়ার্ডের কাছেই এবার একটা রেকর্ড হাতছাড়া হয়ে গেল আর্জেন্টাইন অধিনায়কের।

সাত বারের ব্যালন ডি’অর বিজয়ীর দখলে এতদিন ছিল দক্ষিণ আমেরিকান বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে সবচেয়ে বেশি গোলের রেকর্ডটা। আজ বুধবার সকালে সেই রেকর্ডটাই ভেঙে গেছে তার। গত শুক্রবার সকালে উরুগুয়ের একমাত্র গোলটি করে সুয়ারেজ। পাশে এসে দাঁড়িয়েছিলেন মেসির। আজ সকালে ভেনেজুএলার বিপক্ষে তার দলের ৪-১ গোলের জয়ের শেষটি করেছেন তিনি। তাতেই রেকর্ডটা একান্ত নিজের করে নিয়েছেন উরুগুইয়ান এই ফরোয়ার্ড। 

ভেনেজুয়েলার বিপক্ষে এই গোলের পর বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে সুয়ারেজের গোলসংখ্যা এখন ২৮টি। একটি গোল কম নিয়ে মেসি চলে গেছেন তালিকার দ্বিতীয় স্থানে। মেসি তার ২৭ গোল করেছেন ৫৮ ম্যাচে, সেখানে সুয়ারেজ তার ২৮ গোল করতে ম্যাচ খেলেছেন ৬০টি।

তবে সব মিলিয়ে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ইতিহাসে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ডটা গড়তে অবশ্য আরও অনেক পথ পাড়ি দিতে হবে সুয়ারেজকে। মধ্য আমেরিকান দল গুয়াতেমালার ফরোয়ার্ড কার্লোস রুইজ ৩৯ গোল নিয়ে আছেন তালিকার শীর্ষে। 

দুইয়ে আছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। ইউরোপিয়ান বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে তিনি গোল করেছেন ৩৬টি। পরের দুটো জায়গা দখল করে আছে এশিয়া। এ অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে যথাক্রমে ৩৪ ও ২৮ গোল করে আলী দাইয়ী ও কারিম বাগারি আছেন তালিকার তিনে ও চারে। পঞ্চম জায়গাটা আবার ইউরোপের। রবার্ট লেভান্ডভস্কি ২৯ গোল করে দখল করে আছেন জায়গাটি। আজকের গোলের পর এরপরের জায়গাটা একান্তই নিজের করে নিয়েছেন লুই সুয়ারেজ। তার চেয়ে এক গোল কম করে মেসি আছেন তালিকার পরের অবস্থানে।

মেরাজুল কনক

আমি মেরাজুল ইসলাম, একজন বাংলাদেশী ব্লগার। ব্লগিং এর পাশাপাশি আমি ওয়েবসাইট ডিজাইন, কন্টেন্ট রাইটিং, কাস্টমাইজ সহ ওয়েব রিলেটেড অনেক কাজ করি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন (0)
নবীনতর পূর্বতন