হাওয়েল ঝড়ে রানের পাহাড় চট্টগ্রামের

চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের হয়ে আগের দুই ম্যাচে ফিনিশিংয়ে দুর্দান্ত ফর্মে ছিলেন ইংলিশ পেস অলরাউন্ডার বেনি হাওয়েল। আজও শেষদিকে ব্যাট হাতে ঝড় তুললেন। তার এক ছয় ও ৪ চারে সাজানো ৩৪ রানের মূল্যবান ইনিংসে ভর করে মুশফিকের খুলনার বিপক্ষে ১৯০ রানের বড় সংগ্রহ পেয়েছে মিরাজের চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। চলতি বিপিএলে এটাই সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহ

টস হেরে শুরুতে ব্যাট করতে নেমেছিল চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। দুই ওপেনার উইল জ্যাকস এবং কেনার লুইস মিলে শুরুটাও করে দারুণ।

ইনিংসের প্রথম বলেই অতিরিক্ত থেকে আসে পাঁচ রান। শুভর করা বল ওয়াইড তো হয়ই সঙ্গে সীমানা দড়িও পেরিয়ে যায়। এরপর ক্যারিবীয় ব্যাটিং দানব কেনার লুইস ছক্কা হাঁকিয়ে যেন স্বাগত জানান বোলারকে। এরপর উইল জ্যাকসের ছয়-চারে এক ওভার শেষেই মিরাজের চট্টলার সংগ্রহ দাঁড়ায় ১৯ রান!

তবে দ্বিতীয় ওভারেই ছন্দপতন। কামরুল রাব্বির প্রথম বলে ছয় হাঁকানোর পর তৃতীয় বলেই আফগান বোলার নাভিন উল হকের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন ইংলিশ ব্যাটার জ্যাকস।

জ্যাকস আউট হলেও অন্য প্রান্তে আফিফকে নিয়ে ভালোই এগোচ্ছিলেন কেনার লুইস। তবে দুই চার ও দুই ছয়ে মাত্র ১৪ বলে ২৫ রান করার পর রাব্বির দ্বিতীয় স্বীকার হয়ে সাজঘরে যান তিনি।

লুইস আর জ্যাকসের বিদায়ের পর চট্টলার ইনিংস এগোচ্ছিল কিছুটা মন্থর গতিতে। বিপিএলের চলতি আসরে নিজেকে যেন হারিয়ে খুঁজছেন আফিফ। আগের ম্যাচগুলোর মতো আজও দলকে বড় সংগ্রহ এনে দিতে পারেননি। রানআউটের ফাঁদে পড়ে ফিরে গেছেন।

তবে রানে ফিরেছেন দীর্ঘদিন জাতীয় দলের বাইরে থাকা সাব্বির রহমান। টিম টাইগার্সের মারকুটে এই ব্যাটার এক ছয়ে ৩৩ বলে ৩২ রান করে ফরহাদ রেজার শিকার হয়ে ফিরেছেন।

বল হাতে দুর্দান্ত ফর্মে থাকা অধিনায়ক মিরাজ ব্যাট হাতেও কার্যকর ইনিংস খেললেন। ৪ চারে ২৩ বলে করেছেন ৩০ রান।

চট্টগ্রামের হয়ে দারুণ ছন্দে আছেন বেনি হাওয়েল। আগের দুই ম্যাচের মতো আজও রান পেয়েছেন। এক ছয় ও ৪ চারের সাহায্যে করেছেন ৩৪ রান। 

খুলনা টাইগার্স একাদশ 

তানজিদ হাসান, আন্দ্রে ফ্লেচার, রনি তালুকদার, মুশফিকুর রহিম (অধিনায়ক), ইয়াসির রাব্বী, থিসারা পেরেরা, মেহেদীহ হাসান, ফরহাদ রেজা, সোহরাউর্দী শুভ, নাভিদ-উল-হক এবং কামরুল  ইসলাম।

চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স একাদশ 

কেনার লুইস, উইল জ্যাকস, আফিফ হোসাইন, সাব্বির রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ (অধিনায়ক), বেনি হাওয়েল, শামীম হোসাইন, নাইম ইসলাম, নাসুম আহমেদ, রেজাউর রহমান রাজা এবং শরিফুল ইসলাম।


মেরাজুল কনক

আমি মেরাজুল ইসলাম, একজন বাংলাদেশী ব্লগার। ব্লগিং এর পাশাপাশি আমি ওয়েবসাইট ডিজাইন, কন্টেন্ট রাইটিং, কাস্টমাইজ সহ ওয়েব রিলেটেড অনেক কাজ করি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন (0)
নবীনতর পূর্বতন