মেসি প্রতিদিন কী করে, দেখতে পেরেই খুশি ডি মারিয়া

কোপা আমেরিকা ফাইনালে আর্জেন্টিনার জয়ের নায়ক ছিলেন আনহেল ডি মারিয়া। ব্রাজিলের বিপক্ষে ম্যাচে একমাত্র গোলটি এসেছে তার পা থেকে। আর্জেন্টাইন অধিনায়ক লিওনেল মেসির সঙ্গে একই ক্লাবে খেলার ইচ্ছে ডি মারিয়ার ছিল অনেকদিনের। চলতি মৌসুমেই পূরণ হয়েছে সেটি।

মেসি প্রতিদিন কী করে, দেখতে পেরেই খুশি ডি মারিয়া

বার্সেলোনার সঙ্গে ২১ বছরের সম্পর্কের অবসান ঘটিয়ে পিএসজিতে যোগ দিয়েছেন মেসি। ক্লাবটিতে আগে থেকেই ছিলেন ডি মারিয়া। সম্প্রতি টিওআইসি স্পোর্টসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, আর্জেন্টিনা দলের বাইরেও মেসি প্রতিদিন কী করছেন সেটি দেখতে পেরেই খুশি।

ডি মারিয়া বলেছেন, ‘আমার ক্যারিয়ারে কেকের ওপর বরফটা কখনো পাইনি; মেসির সঙ্গে একই ক্লাবে খেলা। আমি বেশ কয়েকবার সুযোগ পেয়েছিলাম বার্সায় যাওয়ার, কিন্তু হয়নি। সে প্রতিদিন কী করে আর্জেন্টিনা দলের বাইরেও সেটা দেখতে পেরে আমি অনেক খুশি।’

গত এক যুগেরও বেশি সময় ধরে পুরো ফুটবল বিশ্বকে নিজের পায়ের জাদুতে মুগ্ধ করে রেখেছেন মেসি। পেয়েছেন নানা প্রশংসাও। অনেকে তাকে বলে থাকেন ‘এলিয়েন’। কিন্তু ডি মারিয়ার কাছে মেসি কেবলই একজন সহজ-সরল বন্ধু। আর্জেন্টাইন অধিনায়কও তেমনই থাকতে চান বলে জানিয়েছেন এই মিডফিল্ডার।

তিনি বলেছেন, ‘আমি তাকে অন্য সাধারণ মানুষের মতোই দেখি, সে যেভাবে তাকে দেখাতে পছন্দ করে। সে দেখানো (নিজেকে) পছন্দ করে না।  যাদের সঙ্গে ভালো সম্পর্ক, তাদের সঙ্গে আড্ডা দেয়। যারা তাকে সমানভাবে দেখে, তাদের সঙ্গেই বেশি মেশে। যদি আপনি তাকে এলিয়েন ভাবেন, সে সেটা পছন্দ করবে না।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা চারপাশে সবকিছুকে গুলিয়ে ফেলি। সংবাদ মাধ্যমে তাকে এলিয়েন বলা হয়, কারণ সে বিশ্বের সেরা ফুটবলার। কিন্তু দিনশেষে আমাদের কাছে সে লিও। সে খুব ছোট, আমরা তাকে সেভাবেই দেখি।’

মেরাজুল কনক

আমি মেরাজুল ইসলাম, একজন বাংলাদেশী ব্লগার। ব্লগিং এর পাশাপাশি আমি ওয়েবসাইট ডিজাইন, কন্টেন্ট রাইটিং, কাস্টমাইজ সহ ওয়েব রিলেটেড অনেক কাজ করি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন (0)
নবীনতর পূর্বতন